" /> বাঁকড়ার মাশিয়ার বাস্তুভিটা জবর দখলের চেষ্টা-চাঁদার দাবিতে নির্মাণকাজ বন্ধ – desharkantho24
শিরোনাম
Home >> দূনতি >> বাঁকড়ার মাশিয়ার বাস্তুভিটা জবর দখলের চেষ্টা-চাঁদার দাবিতে নির্মাণকাজ বন্ধ

বাঁকড়ার মাশিয়ার বাস্তুভিটা জবর দখলের চেষ্টা-চাঁদার দাবিতে নির্মাণকাজ বন্ধ

বেনাপোল  প্রতিনিধিঃ-ইকরামুল ইসলাম 
যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া মাটশিয়াতে চাঁদার দাবিতে ৫০ বছরের বাস্তুভিটা থেকে উচ্ছেদের অভিযোগ উঠেছে। বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে বাস্তভিটা নতুন বসতঘর নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। প্রকাশ্যে দুই লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি উঠেছে। বিষয়টা নিয়ে ভুক্তভোগী পরিবার স্থানীয় সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ ও সরোজমিনে যে জানা গেছে, ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ইউপির মাটশিয়া গ্রামের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা এড ফজলুর রহমান ও সদ্য প্রাপ্ত আওয়ামী -লীগের সভাপতি জালাল গাজীর মেজো ভাই গ্রামীণ ডাক্তার আব্দুল করিম গাজী ৫০ বছর যাবত ১৬০ নম্বর মাটশিয়া মৌজায় ১৭৪ নম্বর দাগে বস্তভিটা করে বসবাস করে আসছে। বর্তমানে হাল রেকর্ড জমির শ্রেণী পাস তো, জমির পরিমাণ ৪৪ শতক। সরেজমিনে দেখা গেছে। ৫০ বছর যাবত করিম গাজী সেখানে বাড়ি করে বসবাস করছে।কিন্তু বিগত এক মাস পূর্বে করিম গাজী সেখানে একটি পুরাতন ঘর ভেঙে নতুন ঘর করতে গেলে  ও জমিতে আমার অংশ আছে বলে দাবি করছে থাকে কাদের গাজীর পুত্র তাপু গাজী সে বলছে আমার ওই জমির দলিল আছে কিন্তু দলিল দেখাচ্ছেনা বলে করিম গাজীর পরিবার জানান।বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে কাজ বন্ধ করে দেয় এবং জমি পাওয়ার পক্ষে কাগজ দেখতে চাইলে দেখায় না।স্থানীয় ভাবে বসবাস করতে সেখানে তাপু গাজী কাগজ না দেখিয়ে বলে আমার দুই লক্ষ টাকা দিলে আমি লিখে দেবো না দিলে আমি কাজ করতে দেব না,  টাকা না দিলে ঘর করতে দেওয়া হবে না বলে জানায়। লিখিত অভিযোগ অভিযোগকারী করিম গাজী মেয়ে শাহানা খাতুন জানান, আমাদের ৫০ বছরের দখল ও ব্যস্ত বাড়ির বর্তমান হাল রেকর্ড সবই আছে তাদের যদি দলিল থাকে তবে আমরা কিনে নেব কিন্তু একটা কথা বললেও সে দলিল দেখাচ্ছেনা, শুনেছি তাপু গাজী একটা জাল দলিল বানিয়েছে যার বালাম বইতে কোন অস্তিত্ব নেই। সে নিজে ওই এলাকার সন্ত্রাসী লোকজন দিয়ে আমাদের অব্যাহত হুমকি দিচ্ছে এবং মিথ্যা মামলার করবে বলে কথা বলে বেড়াচ্ছে। আমি প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েছি ন্যায় বিচারের আশায়।বিগত উপজেলা নির্বাচনে তারা এক পক্ষে নির্বাচন করেছিল আমার আব্বা নৌকার পক্ষে নির্বাচন করেছিল। নির্বাচনের পর আমাদের পরিবারের সন্ত্রাস দিয়ে বারবার হুমকি দিয়ে চলেছে তাপু গাজী।
এদিকে নিরিহ করিম গাজী জানিয়েছেন,পারিবারিক ভাবে প্রায় ৫০ বছর ধরে এখানে বাস্ত বাড়ি করে বসবাস করছি আমি। এতদিন কোনো কথা বলিনি কাদের গাজী বা তাপু গাজী। নির্বাচনের জেরে এখন প্রভাবশালী ও ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দ্বারা আমার কাছে চাঁদা দাবি করেছে তার পরিবারকে প্রকাশ্যে হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে। আমাদের পক্ষে কেউ কথা বললে তাকে হুমকি দিচ্ছে ও মিথ্যা মামলা জড়ানোর কথা বলছে। অবিলম্বে তিনি এ থেকে প্রতিকারের দাবি করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*