শিরোনাম
Home >> লীড নিউজ >> বরগুনায় ইলিশ উৎসব হবে আগামীকাল

বরগুনায় ইলিশ উৎসব হবে আগামীকাল

বরগুনা প্রতিনিধি :-মোঃআসাদুজ্জামান

‘ইলিশের জেলা বরগুনা’ এ শ্লোগান নিয়ে আগামীকাল বুধবার বরগুনার সার্কিট হাউজ মাঠে হবে ইলিশ উৎসব।
বরগুনা জেলা প্রশাসন ও জেলা টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরাম এ উৎসবের আয়োজন করেছে। ইলিশ উৎসবকে সামনে রেখে আজ বেলা ১১টায় আয়োজকদের পক্ষ থেকে করা হয়েছে সংবাদ সম্মেলন। বরগুনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন
কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী
কমিটির সভাপতি বরগুনা-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু। সংবাদ সম্মেলনে আলোচনা করেন, বরগুনা জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ, বরগুনা জেলা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আলহাজ¦ মো. জাহাঙ্গীর কবির, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ¦ আবদুর
রশিদ মিয়া, জেলা এনজিও ফোরামের সভাপতি আবদুল মোতালেব মৃধা, বরগুনা প্রেসক্লাবের সভাপতি চিত্তরঞ্জন শীল ও জেলা টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মনির হোসেন কামাল। সারা বাংলাদেশে যে পরিমান ইলিশ পাওয়া যায়, তার ৫ ভাগের এক ভাগ ইলিশ আহরিত হয় শুধুমাত্র বরগুনা জেলা থেকে। বরগুনার জেলার অর্ন্তগত পায়রা, বিষখালী ও বলেশ্বর নদীর ইলিশ অত্যন্ত সুস্বাদু। পাশাপাশি রয়েছে বঙ্গোপসাগরের ইলিশ।

গত এক বছরে বরগুনায় ৯৫ হাজার ৯৩৮ মে.টন ইলিশ আহরিত হয়েছে। দিনব্যাপি ইলিশ উৎসবে থাকছে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা, ইলিশের ওপর প্রামান্যচিত্র প্রদর্শণ, সাধারণ জ্ঞানের প্রতিযোগিতা, ইলিশ বিষয়ক নাটক, পূঁথিপাঠ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং স্বল্পমূল্যে ইলিশ কেনার সুযোগ ও রান্না করা ইলিশের বাহারি খাবার। ইতোমধ্যেই তাজা ইলিশের দাম নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। অপেক্ষাকৃত কম দামে কেনা যাবে বঙ্গোপসাগরের ইলিশ। ৫০০ গ্রাম থেকে ৭৯৯ গ্রাম পর্যন্ত প্রতি কেজি ইলিশ কেনা যাবে ৪০০ টাকায়। ৮০০ গ্রাম থেকে ৯৯৯ গ্রাম পর্যন্ত প্রতি কেজি ৬০০ টাকা ও এক কেজির উপরের ইলিশ বিক্রি হবে ৮৫০ টাকায়। পায়রা,

বিষখালী ও বলেশ্বর নদীর ইলিশের দাম সামান্য একটু বেশী। ৫০০ গ্রাম থেকে ৭৯৯ গ্রাম পর্যন্ত প্রতি কেজি ইলিশ কেনা যাবে ৫৫০ টাকায়। ৮০০ গ্রাম থেকে ৯৯৯ গ্রাম পর্যন্ত প্রতি কেজি ৭৫০ টাকা ও এক কেজির উপরের ইলিশ বিক্রি হবে ১০০০ টাকায়। বরগুনার ইলিশকে  পরিচিতি করে তুলতে ও ইলিশের ভান্ডার হিসেবে খ্যাত বরগুনায় দেশি বিদেশি পর্যটককে ইকোট্যুরিজমে আকৃষ্ট করার পাশাপাশি মৎস্যখাতের উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি, প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ ও জাটকা ইলিশ সংরক্ষণে জনসচেতনতা তৈরীর লক্ষ্যে এ উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। বরগুনা জেলা প্রশাসক মোস্তাইন
বিল্লাহ জানিয়েছেন, আকার আকৃতি, বর্ণ ও স্বাদে অুুলনীয় ইলিশ বাঙালীর রন্ধনশিল্পে এক আভিজাত্যপূর্ণ অবস্থান তৈরী করে নিয়েছে। বরগুনায় একটি ইলিশ গবেষনা কেন্দ্র ও ইলিশ মিউজিয়াম স্থাপনের দাবি উত্থাপন, মৎস্যজীবীদের সাথে সর্বস্তরের জনগনের মেলবন্ধন, মাছ ধরার নৌকাসমূহকে আধুনিকায়ন, ইলিশ অবতরণের ঘাটসমূহকে আরও আধুনিক সুযোগসুবিধা বাড়ানোর জন্য ইলিশ উৎসব থেকে দাবী জানানো হবে। বরগুনা জেলা টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মনির হোসেন কামাল জানিয়েছেন, আগামী কালের ইলিশ উৎসবকে সফল করতে চলছে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। তৈরী করা হচ্ছে ইলিশ মঞ্চ ও রংবেরঙের বাহারী স্টল। চলছে সাজসজ্জার কাজ। এ উৎসবে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষের সমাগত ঘটবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*