" /> সাতক্ষীরায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করায়,ডেপুটি জেলার কে আইজিপি প্রিজনে তলব – desharkantho24
শিরোনাম
Home >> তথ্যপ্রযুক্তি >> সাতক্ষীরায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করায়,ডেপুটি জেলার কে আইজিপি প্রিজনে তলব

সাতক্ষীরায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করায়,ডেপুটি জেলার কে আইজিপি প্রিজনে তলব

মোঃ খলিলুর রহমান সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ
সাতক্ষীরায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তির দায়ে ডেপুটি জেলার ডলি আক্তার ওরফে জলি মেহেজাবিন খানকে আইজিপি প্রিজনে তলব করা হয়েছে। গত ৩ সেপ্টেম্বর ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারের ব্যবহৃত জলি মেহেজাবিন খান ফেসবুক আইডি থেকে একটি পোষ্টকৃত ছবির মন্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বিলাই (বিড়াল) লিখে কটুক্তি করেন।
এ ঘটনায় স্থানীয় দৈনিক সাতনদীর অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর কারা বিভাগের আইজিপি প্রিজন ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারকে কারণ দর্শাতে বলেছেন বলে জানা গেছে।
শনিবার সাতক্ষীরা জেলা কারাগারের জেল সুপার আবু জায়েদ জানান, প্রকাশিত সংবাদের কপি ও ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারের দেওয়া ফেসবুকে মন্তব্যের কপি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এ ব্যাপারে আইজিপি স্যারের সঙ্গে কথা বলতে বলা হয়েছে ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারকে।
তিনি বলেন, বিষয়টি ইতোমধ্যে মন্ত্রী মহোদয়সহ কারা বিভাগের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ অবহিত হয়েছেন। মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তির বিষয়ে ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারের ব্যাপারে সাতক্ষীরা কারাগারে এখনো কোন নির্দেশনা আসেনি। নির্দেশনা আসলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নির্দেশনা আসলে বিষয়টি সকলে অবহিত হতে পারবেন।
উল্লেখ্য, সাতক্ষীরা জেলখানার ডেপুটি জেলার ডলি আক্তার ফেসবুক ব্যবহার করেন জলি মেহেজাবিন খান নামে। পহেলা সেপ্টেম্বর কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের একটি অনুষ্ঠানে ধারাভাষ্যকারের দায়িত্ব পালন করেন এই নারী কারা কর্মকর্তা।
ধারাভাষ্যকার দেওয়ার মুহূর্তে নিজের সেলফি তুলে রাখেন তিনি। দুই দিন পর ৩ সেপ্টেম্বর সকাল ৮.৪৯ মিনিটে তিনি তার

ব্যবহৃত জলি মেহেজাবিন খান নামের ফেসবুকে সেই ছবিটি পোষ্ট করেন। ছবির ক্যাপশানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বানানটি ভুল লেখেন এই নারী ডেপুটি জেল সুপার। ছবিতে অনেকেই মন্তব্য করেছেন এর মধ্যে শারমিন ববি নামের একজন নারী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বানানটি ঠিক করার জন্য পরামর্শ দেন। এর প্রতি উত্তরে ডেপুটি জেল সুপার ডলি আক্তার মন্তব্য করেন, আমি চাটুকারিতা একদম পছন্দ করি না আফা, চাকরি করি জেলখানায়, এরকম বহু নামি দামী ব্যান্ড ভিতরে আসলে বিলাই হয়ে যায়।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে তার এ উদ্যত্বপূর্ণ মন্তব্যের পর সাতক্ষীরার ডেপুটি জেল সুপার ডলি আক্তার ওরফে জলি মেহেজাবিন খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ফেসবুক আমার ব্যক্তিগত ব্যাপার। সেখানে আমি কি লিখবো সেটা অন্য কাউকে তো বলবো না। আর কোন প্রসঙ্গে কার সাথে বলেছি সেটাও আপনাকে জানতে হবে ?
তবে জেল সুপার আবু জায়েদকে কটুক্তির বিষয়ে ডেপুটি জেলার ডলি আক্তার জানিয়েছেন, ওই মেয়েটার সঙ্গে আমার ঝগড়া রয়েছে। সেজন্য লিখেছি। লেখাটা আমার ভুল হয়ে গেছে।
এদিকে, সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে এমন উদ্যত্তপূর্ণ ফেসবুক মন্তব্যের তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ছাত্রলীগ।
ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারের শাস্তির দাবি জানিয়ে সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমান বলেন, সরকার বিরোধী হলেই কেবল এমন মন্তব্য করা যায়। সরকার বিরোধী শক্তি ডেপুটি জেলার ডলি আক্তারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে আন্দোলনে যাবে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*