শিরোনাম
Home >> লীড নিউজ >> সুনামগঞ্জে বাল্য বিবাহে অভিযোগ আটক তিন,মুচলেকা দিয়ে মুক্তি

সুনামগঞ্জে বাল্য বিবাহে অভিযোগ আটক তিন,মুচলেকা দিয়ে মুক্তি

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)এজাজুল ইসলামের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে ১৪ বছরের এক কিশোরী।
উপজেলার সদর ইউনিয়নের একটি গ্রামে বাল্য বিবাহ হচ্ছে এমন সংবাদের পেয়ে শুক্রবার বিকেলে বাল্যবিয়ের আসর থেকে বর,বরের বোন জামাই এবং ওই কিশোরীর বাবাকে আটক করে ধর্মপাশা থানা পুলিশ।

ধর্মপাশা থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়,উপজেলার সদর ইউনিয়নের একটি গ্রামের এক কিশোরীর (১৪) সঙ্গে পাশের নেত্রকোণার মোহনগঞ্জ উপজেলার এক যুবকের (২৫) বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুক্রবার বিকেলে সম্পন্ন হওয়ার কথা ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে বিকেল চারটার দিকে একদল পুলিশ ওই কিশোরীর বাড়িতে পাঠান ওসি । এ সময় বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। পুলিশ আসায় সবাই চমকে উঠে। পরে পুলিশ বিয়ের আসর থেকে বর আনোয়ার হোসেন (২৫), বরের বোন জামাই শফিকুল ইসলাম (৩৪) ও কিশোরীরর বাবা জিয়াউর রহমান (৩৪)কে আটক করে ধর্মপাশা থানায় নিয়ে আসে।

ধর্মপাশা থানার ওসি এজাজুল ইসলাম বলেন,বাল্যবিয়ে একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ। বাল্যবিয়ে রোধে থানা পুলিশ সর্বদা তৎপর রয়েছে। কিশোরীরর বাবা ১৮বছরের আগে তার মেয়েকে বিয়ে দেবেন না বলে লিখিতভাবে অঙ্গীকার করেন। একই সময়ে বর ও বরের বোন জামাই ১৮ বছরের নিচে কোনো মেয়েকে বিয়ে না করা ও ভবিষ্যতে বাল্যবিয়েতে সহায়তা না করার জন্য লিখিতভাবে অঙ্গীকার করার পর সন্ধ্যারপর তিনজন থানা থেকে মুক্তি পান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*