শিরোনাম
Home >> লীড নিউজ >> কালকিনিতে মামলা তুলে নিতে স্ত্রীকে হুমকি॥ প্রতিবাদে বিক্ষোভ

কালকিনিতে মামলা তুলে নিতে স্ত্রীকে হুমকি॥ প্রতিবাদে বিক্ষোভ

কালকিনি(মাদারীপুর) প্রতিনিধিঃ মোঃ আতিকুর রহমান আজাদ

মাদারীপুরের কালকিনিতে জামিনে বেরিয়ে মামলা তুলে নিতে স্ত্রীকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে আসামি মোঃ নুরু সিকদার-(৭০) নামের এক স্বামীর বিরুদ্ধে। আজ মঙ্গলবার সকালে এ হুমকির প্রতিবাদে উপজেলার বাশগাড়ী এলাকার আশ্রয়ন প্রকল্পে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাদী পক্ষের লোকজন এবং এলাকাবাসী।
এলাকা ও ভূক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাশগাড়ী এলাকার ভাদুরী গ্রামের শিকিমালী বেপারীর মেয়ে মনোয়ারা বেগমের সঙ্গে একই এলাকার রায়চন্দ্রপুর গ্রামের জৈনদ্দীন সিকদারের ছেলে নুরু সিকদারের প্রায় ৪০ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। তাদের সংসারে ৪জন সন্তান রয়েছে। কিন্তু প্রায় দুই বছর যাবত ওই লম্পট স্বামী নুরু সিকদার তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগমের সংসার ছেড়ে ওই এলাকার বিধবা এক গৃহ বধুর সঙ্গে ঘর-সংসার করে আসছেন। তবে ইসলামী শরিয়ত বোতাবেক শুধুমাত্র কবুল পরে তার সাথে ঘর-সংসার করছেন বলে দাবী লম্পট নুরু সিকদারের। এদিকে চার সন্তানের জননী বৃদ্ধা মনোয়ারা বেগম(৬০) তার সন্তানদের নিয়ে আশ্রয়ন প্রকল্পের জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন। পরে উপায়অন্ত না পেয়ে স্ত্রী মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে স্বামী নুরু সিকদারকে আসামি করে আদালতে একটি যৌতুক ও নারি-শিশু মামলা দায়ের করেন। পরে থানা পুলিশ আসামি নুরু সিকদারকে গত ৯ আগস্ট রাতে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরন করে। পরে ১৭দিন হাজতে থাকার পরে ২৫ আগস্ট জামিনে বেড়িয়ে মামলার বাদী স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও তার সন্তানদের হত্যাসহ বিভিন্ন হুমকি প্রদান করে আসছেন স্বামী নুরু সিকদার ও তার লোকজন। এ হুমকির প্রতিবাদে ও আসামি নুরু সিকদারকে পূনরায় গ্রেফতার করে বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে স্ত্রী, সন্তান ও শতাধীক স্থানীয় এলাকাবাসী। এসময় আঃ রব সরদার, নাসির হাওলাদার, রুবেল সরদার, সুজন সিকদার, আলাউদ্দিন খান, কল্পনা বেগম ও জহুরাসহ বেশ কয়েকজন মিলে বলেন, নুরু সিকদার আমাদের আশ্রয়ন কমিটির সভাপতি ছিলেন। তিনি অনেক প্রভাবশালী তাই সে বিয়ে না করেই এক বিধবা নারীর সঙ্গে সংসার করে আসছেন। তাই আমরা সবাই মিলে তাকে সভাপতি পদ থেকে বাদ দিয়েছি। আসলে সে একজন লম্পট আমরা তার বিচার চাই।
মামলার বাদী মনোয়ারা বেগম কান্না জরিত কন্ঠে বলেন, আমার স্বামী প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেহ কথা বলতে সাহস পাচ্ছেনা। তাই আমি আমার চার সন্তান নিয়ে এখন আশ্রয়ন প্রকল্পের জায়গায় আশ্রয় নিয়েছি। আমার লম্পট স্বামী নুরু সিকদার বিয়ে না করেই অন্য এক মহিলার সঙ্গে সংসার করছেন। আমার ও আমার সন্তানের কোন খোজ সে রাখেনা। তাই আমি তার নামে মামলা করেছি। এখন সে জামিনে বেরিয়ে আমাকে ও আমার সন্তানদের হত্যাসহ বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছে। আমি তার বিচার চাই।

অভিযুক্ত নুরু সিকদার বলেন, আমি ইসলামী শরিয়ত মতে কবুল পরে নতুন বিয়ে করেছি। তাই আমি তার সাথে সংসার করছি।
এ ব্যাপারে কালকিনি থানার এসআই মোঃ রবিউর ইসলাম বলেন, আসামি নুরু সিকদারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা থাকায় আমি তাকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরন করেছি। তবে হুমকির বিষয় কিছু যানিনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*