শিরোনাম
Home >> লীড নিউজ >> জয়পুরহাট জেলায় ৪ শত ৩৩ টি ঈদগাহে পবিত্র ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত।

জয়পুরহাট জেলায় ৪ শত ৩৩ টি ঈদগাহে পবিত্র ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত।

স্টাফ রিপোর্টারঃ- নিরেন দাস।
প্রতি বছরের ন্যায় এবারো যথাযোগ্য মর্যাদায় ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে (১২ এ আগস্ট) রোজঃ- সোমবার সকালে জয়পুরহাট জেলার ৫ টি উপজেলায় সর্বমোট ৪ শত ৩৩ টি ঈদগাহ ময়দানে পবিত্র ঈদ-উল-আযাহা উপলক্ষে পবিত্র ঈদের জামাতের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা জুড়ে প্রতিটি ঈদগাহে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নামাজ আদায়ের জন্য ঈদগাহ গুলোকে মনোরম পরিসরে সাজসজ্জায় সাজানো হয়।
জয়পুরহাট,আক্কেলপুর,পাঁচবিবি,কালাই ও ক্ষেতলাল এ ৫ টি পৌরসভার পক্ষ থেকে প্রতিটি পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে শোভা বর্ধনের জন্য ঈদ মোবারক ও ঈদের শুভেচ্ছা জানানো ব্যানার দিয়ে গেট সাজানো হয়েছিল।
জয়পুরহাট সদরে পবিত্র ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয় জেলার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে সেখানে জামাতে শরিক হয়ে নামাজ আদায় করেন জাতীয় সংসদের হুইপ,কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক,জয়পুরহাট-২ আসনের সাংসদ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন (এমপি), জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাকির হোসেন, জয়পুরহাট পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক সহ জেলার নানা পেশার মুসল্লি গণেরা।
জয়পুরহাট চিনিকল জামে মসজিদে ঈদ-উল-আযহার দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়াও কালেক্টরেট ঈদগাহ, কাশিয়াবাড়ী ঈদগাহ,তালীমূল ইসলাম একাডেমী ঈদগাহ, তেঘর হাইস্কুল ঈদগাহ, পুলিশ লাইন, খনজনপুর, রামদেও বাজলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ,তেঁতুলতলী ঈদগাহ ও হাতিল বুলুপাড়া ঈদগাহ ও করিম নগর লাল বাজার ঈদগাহ ময়দান সহ জেলা জুড়ে মোট ৪ শত ৩৩ টি ঈদগাহ ময়দানে পবিত্র ঈদের জামাতের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।
ঈদ-উল-আযহা উদযাপনের জন্য জেলার আইন-শৃংখলা বাহিনীর পক্ষ থেকে প্রতিটি ঈদগাহ গুলোতে নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা হিসেবে পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোষাকের পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশের ব্যাপক নজরদারী রাখা হয়েছিলো বলে জানান (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) উজ্জল কুমার রায়। এ ছাড়াও র‌্যাব-৫ সদস্যরাও সার্বক্ষণিক আইন-শৃংখলা তদারকি করতে দেখা যায়।
নামাজ শেষে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় পশু কোরবানী করেন। নির্ধারিত স্থানে পশু জবাই করা ও ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতায় বিষয়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছিলো প্রতিটি পৌরসভার পক্ষ থেকে বলে ৫ টি পৌরসভার মেয়রেরা জানান ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*