শিরোনাম
Home >> লাইফস্টাইল >> ৩ দিন ব্যাপি প্রচলিত ডেঙ্গু গুজব প্রতিরোধে সচেতনতামূলক আলোচনা

৩ দিন ব্যাপি প্রচলিত ডেঙ্গু গুজব প্রতিরোধে সচেতনতামূলক আলোচনা

 রিপোর্ট, রাকিব হাসান ( মাদারীপুর  প্রতিনিধি)

মাদারীপুর জেলার এর বিভিন্ন ইউনিয়ন ৩ দিন ব্যাপি  প্রচলিত ডেঙ্গু গুজব প্রতিরোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীদের সচেতনতামূলক দিকনির্দেশনা  মাদারীপুর জেলার  মোঃ হযরত আলী, ভিডিপি সদস্য। এর উদ্যগে এলাকার   কয়েকজন সদস্য নিয়ে এই কর্মসূচী  পালন করে। এছাড়াও মোঃ হযরত আলী বিভিন্ন  সেবামূলক সংস্থার সাথে থেকে মানুষের  সেবা করে চলছে।
প্রথম  দিন মাদারীপুর  জেলার মস্তফাপুর  ইউনিয়ন খৈয়ারভাঙ্গা হাই স্কুল  এবং খাকছারা হাই স্কুল  সহ কয়েকটি স্কুলে পরির্দশন।
কিভাবে প্রতিরোধ করা যায়-
এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ ও এর কামড়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার মাধ্যমে ডেঙ্গু জ্বর অনেকাংশে প্রতিরোধ করা সম্ভব। এ ছাড়া ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীরও উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে, যাতে তার শরীর থেকে ডেঙ্গু ভাইরাস অন্য মানুষের শরীরে ছড়াতে না পারে।

এডিস মশা প্রতিরোধ করা-
এডিস মশা প্রতিরোধ করতে হলে এসব মশার বংশ বিস্তারের স্থানের দিকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। পরিত্যক্ত গাড়ির টায়ার, নারকেলের মালা বা ডাবের খোসা ইত্যাদি যেন যেখানে সেখানে পড়ে না থাকে। ফুলের টব, পরিত্যক্ত টায়ার, নারকেল বা ডাবের খোসা- এগুলোতে যেন চার-পাঁচ দিনের বেশি সময় ধরে পানি জমে থাকতে না পারে। বাড়িঘরের আশপাশে কীটনাশক ওষুধ স্প্রে করে এডিস মশা মারা যেতে পারে।

এডিস মশার কামড় প্রতিরোধ করা-


এডিস মশা দিনের বেলায়ও কামড়ায়। তাই দিনের বেলায়ই এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেশি। অতএব, দিনের বেলায়ও এডিস মশার কামড়ের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। লম্বা হাতাযুক্ত জামা এবং শরীর ঢাকে, এরূপ পোশাক পরিধান করলে মশার কামড় থেকে রেহাই পাওয়া যাবে। মশারি, মশার কয়েল, স্প্রে ইত্যাদি ব্যবহার করলেও মশার কামড় থেকে রেহাই পাওয়া যাবে।
ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া : ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীকে মশারির ভেতরে বিশ্রামে রেখে চিকিৎসা দিতে হবে, যেন তাকে মশা কামড় দিতে না পারে এবং অন্য মানুষের মধ্যে ভাইরাস ছড়াতে না পারে।

মাদারীপুর প্রচলিত পদ্মা সেতুর জন্য মাথা লাগবে, ছেলেধরা/গলাকাটা গুজব সম্পর্কে সচেতন হতে পরামর্শ দেওয়া।
যে কোন লোক এলাকায় ঘুরাঘুরি করতে দেখলে সে কে ? কি তার পরিচয় নিশ্চিত করুন!
যে কোন উদ্বুত পরিস্থিতিতে কাউকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা না করে পুলিশে সোপর্দ করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*