Home >> লীড নিউজ >> রূপসায় জনসম্মুখে সন্ত্রাসীরা কেটে দিয়েছে দু-হাতের কবজি ও পায়ের রগ

রূপসায় জনসম্মুখে সন্ত্রাসীরা কেটে দিয়েছে দু-হাতের কবজি ও পায়ের রগ

খান আব্দুল জব্বার শিবলীঃ রূপসা প্রতিনিধি:

রূপসা উপজেলার গুরুত্বপূর্ন পয়েন্ট খান জাহান আলী ব্রীজের নিচে জনসম্মূখে এক ব্যক্তিকে দুহাতের কবজি ও দু পায়ের রগ কেটে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। পুলিশ তাৎক্ষনিক ভাবে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে এক জনকে গ্রেফতার করেছে। ভুক্তভোগীর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে গতকাল ৭ জানুয়ারী সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে জাবুসা গ্রামের মৃত শামসু শেখের পুত্র সাদ্দাম শেখ (৬০) চা খাওয়ার উদ্দেশ্যে ব্রীজের নিচে আসে। এ সময় পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসী নজরুল, রাজু, রাসেল সহ তার সহযোগীরা সাদ্দাম হোসেনকে বেধড়ক মারপিট ও জখম করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা সাদ্দাম শেখ কে জাপটে ধরে দুহাতের কবজি কেটে বাহু থেকে বিচ্ছিন্ন এবং দুপায়ের রগ কেটে দেয়। তার আত্মচিৎকারে আশে পাশের লোক থাকলেও সন্ত্রাসীদের ভয়ে কেউ কাছে আসতে সাহস পাইনি। অবশেষে সন্ত্রাসীরা চলে গেলে পরিবারের লোকজন খবর পেয়ে সাদ্দামকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

সাদ্দাম শেখের পুত্র নাসিম শেখ জানায়, ২০১২ সালের ৩ আগষ্ট উক্ত সন্ত্রাীরা আমাদের পরিবারের উপর হামলা চালিয়েছিল। সে সময় তাদের হামলায় আমাদের পরিবারের ৭ জন জখম হয়। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয় যা এখন আদালতে চলমান আছে। সন্ত্রাসীরা জামিনে মুক্তি পেয়ে দীর্ঘদিন ধরে আমাদের হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিল। অবশেষে জমিজমা সংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে আজ সুযোগ বুঝে তারা আমার পিতাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এভাবে জখম করেছে। এব্যাপারে রূপসা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনার পর ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে থানা পুলিশ জাবুসা গ্রামের আরশাদ শেখের পুত্র নজরুল ইসলাম শেখ ওরফে নজু ফকিরকে গ্রেফতার করেছে। বাকী অভিযুক্তদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*